গ্রামীণ স্বাস্থ্যের হাল ফেরাতে গোটা গ্রাম দত্তক নিলেন সরকারের হবু চিকিৎসকেরা

0
18

মালদহ: সরকারি হাসপাতালের (Government hospital) চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে মানুষের অভিযোগের অন্ত নেই৷ বিশেষত গ্রামীণ এলাকায়৷ পরিকাঠামোগত ঘাটতি থেকে শুরু করে চিকিৎসক-নার্সদের অনিয়মিত উপস্থিতি, খারাপ ব্যবহার- অভিযোগের তালিকা দীর্ঘতর৷ এমন আবহে একেবারে ভিন্ন ধরণের ছবি সামনে আনল মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷ গ্রামীণ স্বাস্থ্য সম্পর্কে ভবিষ্যতের চিকিৎসকদের সম্যক ধারণা দিতে একটি আদিবাসী গ্রাম দত্তক নিল মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল৷

আজ থেকে মেডিক্যালের প্রথম বর্ষের পড়ুয়ারা বছরভর পুরাতন মালদহের ঝাড়পুকুরিয়া গ্রামের মানুষদের স্বাস্থ্য সহ নানাবিধ বিষয় পর্যবেক্ষণ করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করবেন৷ লক্ষ্মীবারের পড়ন্ত বিকেলে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে গোটা গ্রামকে দত্তক নেওয়ার অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন মালদহ মেডিক্যালের অধ্যক্ষ পার্থপ্রতিম মুখোপাধ্যায়, সহকারী অধ্যক্ষ পুরঞ্জয় সাহা, পুরাতন মালদহের বিএমওএইচ জয়দীপ মজুমদারেরা৷ হাজির ছিলেন প্রথমবর্ষের পড়ুয়া সহ এএনএম ও আশাকর্মীরাও৷

- Advertisement -

সহকারী অধ্যক্ষ পুরঞ্জয় সাহা জানান, ‘‘কমিউনিটি মেডিসিনের অঙ্গ হিসাবে প্রথমবর্ষের পড়ুয়াদের তৃণমূলস্তরের স্বাস্থ্য সম্পর্কে ধারণা দিতে ঝাড়পুকুরিয়া ও সংলগ্ন আরও একটি গ্রামকে আমরা বেছে নিয়েছি৷ প্রথমবর্ষের ১২৫ জন পড়ুয়ার প্রত্যেককে একটি করে পরিবারকে দত্তক দেওয়া হয়েছে৷ আগামী সাড়ে চার বছর এই পড়ুয়ারা তাঁদের হাতে থাকা পরিবারের সদস্যদের স্বাস্থ্যের উপর নজরদারি চালিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবেন৷ এই কাজে তাঁদের সহায়তা করবেন এএনএম ও আশাকর্মীরা৷’’ প্রয়োজনে রোগীদের স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্র কিংবা গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যেতেও সাহায্য করবেন পড়ুয়ারা৷ কোনও কারণে কাউকে মেডিক্যালে (Government hospital) ভর্তি হতে হলে কীভাবে রোগীকে মেডিক্যালে ভর্তি করা হবে, তাও পড়ুয়ারা বিশদে পরিবারের সদস্যদের জানাবেন৷ টানা সাড়ে চার বছরে পড়ুয়া জীবনে হবু চিকিৎসকেরা রাজ্যের গ্রামীণ স্বাস্থ্য সম্পর্কে অনেকটাই ওয়াকিবহাল হয়ে উঠবেন বলেই মত মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষের৷

আরও পড়ুন: পঞ্চায়েত ভোটে কতখানি ‘চাপে’ তৃণমূল, হাটে হাঁড়ি ভাঙলেন মদন মিত্র