কাতারে বিশ্বকাপ দেখতে আসা বহিরাগতকে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা

0
57

শান্তি রায়চৌধুরী: নভেম্বর শুরু হচ্ছে কাতার বিশ্বকাপ। তবে স্বস্তির মধ্যে আবার অস্বস্তি। করোনাভাইরাস বিশ্বজুড়ে আবার চোখ রাঙাচ্ছে। তাতে শঙ্কা তৈরি হয়েছে কাতার বিশ্বকাপ ঘিরেও। বিশ্বকাপে দর্শকহীন গ্যালারি থাকবে, এটা তো ভাবা যায় না। আয়োজক কাতারও সেই চিন্তা করতে পারছে না। তাই করোনাভাইরাসমুক্ত বিশ্বকাপ আয়োজনের পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। যে পরিকল্পনার অংশ হিসেবে বিশ্বকাপ দেখতে আসা সকল দর্শককে করোনার টিকার আওতায় আনার কাজ শুরু করেছে কাতার কর্তৃপক্ষ।

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

কাতারের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা এই খবরটি প্রকাশ করেছে। যেখানে কাতারের বিদেশমন্ত্রী আব্দুল রহমান আল-থানি জানিয়েছেন, বিশ্বকাপ আয়োজনে প্রস্তুত কাতার এবং সেটি দর্শকদের নিয়েই। আর এ লক্ষ্যে বিশ্বকাপ দেখতে আসা সবাইকে করোনার টিকা সরবরাহ করার কাজ শুরু করছে কাতার। তিনি বলেন, “বিশ্বকাপ দেখতে আসা সব দর্শককে টিকার আওতার মধ্যে আনার কাজ চলছে। আশা করছি, আমরা কোভিডমুক্ত ইভেন্ট আয়োজন করতে পারব।”

গত ফেব্রুয়ারিতে অবশ্য ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো অন্যরকম ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন, কাতার বিশ্বকাপ দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। তবে আয়োজকদের পরিষ্কার মন্তব্য, কাতার বিশ্বকাপ দর্শক নিয়েই হবে। অর্থাৎ দর্শক নিয়েই বিশ্বকাপ আয়োজনের ব্যাপারে তাঁরা আশাবাদী। সেই সঙ্গে আল-থানি আরও জানিয়েছেন, তাঁর বিশ্বাস, ২০২২ বিশ্বকাপ হতে যাচ্ছে কার্বন-মুক্ত প্রথম কোনও বৈশ্বিক প্রতিযোগিতা।

আরও পড়ুন: বন্যেরা বনে সুন্দর, চেন্নাই সুপার কিংস ধোনি-ক্রোড়ে

২০২০ -এর বৈশ্বিক অনেক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা স্থগিত হয়ে গিয়েছে করোনাভাইরাসের কারণে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে চিনে যে এশিয়ান গেমস হওয়ার কথা ছিল তা-ও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিশ্বজুড়ে নতুন করে করোনা হানা দেওয়ায় আবার তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা। কাতার বিশ্বকাপ নিয়েও তাই রয়েছে শঙ্কা। যদিও আয়োজক দেশটি নির্ধারিত সময়ে দর্শকদের নিয়েই করতে যায় বিশ্বকাপ।