শহরে হাজির ভিন্ন ভিন্ন দেশের রকমারি স্বাদ, থাকবে তাক লাগানোর মত পানীয়-ও

জাপান, কোরিয়া, মালোয়েশিয়া, বার্মা ইত্যাদি দেশের বেশ কিছু ডিশ এবার থেকে পাওয়া যাবে এই হোটেলের রেস্তোরাঁয়। এইসব ডিশের মধ্যে বিশেষ উল্লেখযোগ্য, ডিম সাম।

0
51

বিশ্বদীপ ব্যানার্জি: রোজকার ডাল-ভাতে পেট ভরছে কিন্তু মন ভরছে না। আপনি কি বৈচিত্র্য ভালবাসেন? শুধু ভারত নয়, আরও একাধিক দেশের নয়া নয়া স্বাদ চেখে দেখতে চান? তাহলে আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছে ইস্টার্ন বাইপাসের ধারে মেট্রোপলিটন স্টপেজের নিকটবর্তী এনএক্স হোটেল (NX Hotel)।

NX Hotel

- Advertisement -

আরও পড়ুন: বিপদ বাড়ছে রবীন্দ্র জাদেজার

মঙ্গলবার এই হোটেলের লাউঞ্জে কিচেন কাম স্কাই বারে আবির্ভাব ঘটল একাধিক নয়া কুইজিনের। যা আগে কখনওই এখানে পাননি খাদ্যরসিকরা। বিস্তারিত জানতে খাস খবরের তরফে ধরা হয়েছিল চিফ শেফ সুমন্ত চক্রবর্তীকে। তাঁর ব্যখ্যা, “আগে শুধু ইন্ডিয়ান আর সর্বজনবিদিত কিছু চাইনিজ পদ পাওয়া যেত। কিন্তু মানুষ চাইছিল আরও কিছু। আরও অন্যান্য দেশের কুইজিন। তাঁদের সে চাহিদার কথা মাথায় রেখেই নতুন কিছু ডিশ নিয়ে আসা হয়েছে। অর্থাৎ মাল্টি-কুইজিন রেস্তোরাঁর যা বৈশিষ্ট্য। আশা করছি, এর ফলে আরও বেশি মানুষ আসবেন এখানে।”

NX Hotel
শেফ সুমন্ত

কোন কোন দেশের কুইজিন এবার থেকে পাওয়া যাবে এনএক্স হোটেলে (NX Hotel)? সুমন্তবাবু জানালেন, তাঁরা মূলতঃ এশিয়ান কুইজিনে-ই জোর দিয়েছেন। জাপান, কোরিয়া, মালোয়েশিয়া, বার্মা ইত্যাদি দেশের বেশ কিছু ডিশ এবার থেকে পাওয়া যাবে এই হোটেলের রেস্তোরাঁয়। এইসব ডিশের মধ্যে বিশেষ উল্লেখযোগ্য, ডিম সাম। জনপ্রিয় চাইনিজ পদটি এই প্রথমবার এল এনএক্সে। শুধু তা-ই নয়। ময়দার বদলে এখানে স্টার্চ পাউডার দিয়ে তৈরী করা হবে ডিম সাম।

NX Hotel

অন্যদিকে ইন্ডিয়ান কুইজিন যা যা রয়েছে। শেফ সুমন্ত জানালেন, তার সঙ্গে যোগ হয়েছে পাকিস্তান এবং আফগানিস্তানের বেশ কিছু কুইজিন। পাশাপাশি আবার পাস্তা এবং পিৎজার মত জনপ্রিয় ইতালিয়ান পদগুলি-ও থাকছে। অর্থাৎ মূলতঃ এশিয়ান কুইজিনে জোর দিলেও খাদ্যরসিকদের কন্টিনেন্টালের স্বাদ দিতেও প্রস্তুত এনএক্স।

এবারে আসা যাক এনএক্স লাউঞ্জ প্রসঙ্গে। কোভিড-১৯ অতিমারীর সময় একটু তাড়াহুড়ো করেই হোটেলের ষষ্ঠ তলায় চালু করা হয় লাউঞ্জ। বর্তমানে এটি পুনরায় সংস্কার করা হচ্ছে। এই লাউঞ্জের ইন্টেরিয়র ডিজাইন এবং ডেকোরেশন আপনার মন কেড়ে নেবেই। এছাড়া শেফ সুমন্ত জানালেন, ভোজনরসিকদের পাশাপাশি পানীয় প্রেমীদের কথাও তাঁরা চিন্তাভাবনা করছেন লাউঞ্জের জন্য। “লাউঞ্জের স্কাই বারে যে ককটেল এবং মকটেলে’র গ্লাস রয়েছে, তার সঙ্গে আসতে চলেছে রয়্যাল গ্লাস। খুব শিগগিরই এখানে হাজির হতে চলেছে বিভিন্ন ভ্যারাইটির নতুন ককটেল এবং মকটেল। এ বিষয়ে একজন বিশেষজ্ঞকে নিয়োগ করা হয়েছে। তাঁর নাম আগামী মাসেই আমরা ঘোষণা করব।”

NX Hotel

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

এনএক্স হোটেল বাইপাসের ধারে সগৌরবে দাঁড়িয়ে রয়েছে। কর্মকর্তাদের মধ্যে অন্যতম অ্যালেক্সিস গোমস জানালেন, এই বিলাসবহুল হোটেলে রয়েছে একাধিক সুবিধা। তিনি জানান, “এখানে থাকার ব্যবস্থা রয়েছে। সেইসঙ্গে এই এনএক্স লাউঞ্জ, কিচেন ১৬৫ নামক নিজস্ব মাল্টি-কুইজিন রেস্তোরাঁ (ভেজ এবং নন ভেজ, উভয় পাওয়া যায়) এবং ব্যাঙ্কোয়েট-ও রয়েছে।” অর্থাৎ পকেটে যদি কুলোয়, একবার ঢুঁ মারতেই পারেন এখানে। সামনেই বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব— দুর্গাপুজো। বিশেষ করে, সেই সময়। শেফ সুমন্ত জানিয়েছেন, এতসব আয়োজনের অন্যতম প্রধান কারণ-ই হল, পুজো আসছে।