বিশেষ দিনে অন্য স্বাদের লাঞ্চ প্ল্যানিং, বানিয়ে ফেলুন কিমা বিরিয়ানি

0
19

খাস ডেস্ক: সামনেই বিশেষ দিনে। আর এই দিনে প্রিয় মানুষ গুলোর জন্য ভালো কিছু রান্না করবেন ভাবছেন?কিন্তু স্বাদ হবে চমত্‍কার, মুখে দিলেই মনে হবে স্বর্গ, এমন রেসিপির কোথায় পাবেন? তবে এবার সকলের মন খুশি করার রেসিপি রইল আপনাদের জন্য।

ফ্রাইড রাইস খেতে কে না পছন্দ করে! কমবেশি সবাই-ই পছন্দ করে এটি খেতে। তবে এবার বিশেষ দিনে ফ্রাইড রাইস না খাইয়ে খাওয়ান কিমা বিরিয়ানি। রেস্টুরেন্টের মতন করে আপনি বাড়িতেই বানিয়ে নিতে পারেন এই ডিশটি। চলুন তাহলে জেনে নিন কিভাবে বানাবেন এই রেসিপিটি।

কিমা বিরিয়ানি বানানোর উপকরণ:
২ কাপ বাসমতি চাল, ২০০ গ্রাম পাঠার মাংসের কিমা, ২-৩টি এলাচ, ১টি তেজপাতা, ৩-৪টি লবঙ্গ, ১ চা চামচ আদা কুঁচি, ১ চা চামচ রসুন কুঁচি, ২-৩টি বড় পিঁয়াজ কুঁচি, ১ টেবিল চামচ লঙ্কা গুঁড়ো, ১/২ টেবিল চামচ ধনে গুঁড়ো, ১/২-১ টেবিল চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১/২ চা চামচ গরম মশলা, ১/৪ কাপ ধনে পাতা, নুন, তেল, ঘি ও জল পরিমাণমতো, পরিবেশনের জন্য কাজুবাদাম, কিশমিশ।

কিমা বিরিয়ানি বানানোর পদ্ধতি:
১, প্রথমে একটি বড় কড়াইতে ঘি গরম করে, তাতে পরিমাণমতো পিঁয়াজ কুঁচি, কাজুবাদাম ও কিসমিস দিয়ে বাদামি করে ভেজে অন্য একটি পাত্রে তুলে রাখুন।
২, এরপর কড়াইতে ফের তেল ও ঘি দিয়ে তার মধ্যে এলাচ, তেজপাতা, লবঙ্গ দিয়ে হালকা করে ভেজে নিন। ভাজা হলে এর মধ্যে রসুন, আদা ও কাঁচা লঙ্কা দিয়ে ভেজে নিন।
৩, এরপর পিঁয়াজ কুঁচি দিয়ে বাদামি করে ভেজে নিন। এরপর মাংসের কিমা দিয়ে মশলার সঙ্গে মাংসের কিমা ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।
৪, মাংসে ফের পিঁয়াজ কুঁচি, ধনে পাতা কুঁচি দিয়ে কষাতে হবে যতক্ষণ না পর্যন্ত মাংস সম্পূর্ণ রান্না হয়ে যায়। এই মাংসে বাসমতি চাল, পরিমাণমতো জল ও নুন দিয়ে মিশিয়ে কড়াইয়ের মুখ ভালোভাবে ঢেকে নিতে হবে। মাঝারি আঁচে ২০-২৫ মিনিট রেখে দেওয়ার পর কড়াইয়ের মুখ খুলে দেখতে হবে চাল সেদ্ধ হল কিনা। ৫, এরপর চাল সেদ্ধ হয়ে এলে নামিয়ে নিন। এরপর বিরিয়ানি পরিবেশনের সময় বিরিয়ানির উপরে ঘি ছড়িয়ে দিয়ে তার উপরে আগে থেকে ভেজে রাখা পিঁয়াজ, কাজুবাদাম, কিশমিশ ও ফ্রেশ ধনে পাতা ছড়িয়ে দিতে হবে।