29 C
Kolkata
Tuesday, September 28, 2021
Home খাস বিনোদন পুঁজিবাদের আস্ফালনকেই তোল্লাই দিচ্ছে নতুন রূপের 'গেন্দা ফুল'

পুঁজিবাদের আস্ফালনকেই তোল্লাই দিচ্ছে নতুন রূপের ‘গেন্দা ফুল’

অনুভব খাসনবীশ, কলকাতা: চলতি বছরের মার্চ মাসে বলিউডের র‌্যাপার বাদশার ‘গেন্দা ফুল’ গান নিয়ে তৈরি হয়েছিল বিতর্ক। প্রথমত, বাদশার গাওয়া গানে গানটির রচয়িতা রতন কাহারকে যথাযথ স্বীকৃতি দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ ওঠে। সমালোচনা হয় যে প্রত্যেকবার এভাবেই অরিজিনালের অভাবে বিকৃত করা হচ্ছে পুরোনো জনপ্রিয় গানগুলিকে।

- Advertisement -

এবারও জনপ্রিয় বাংলা এই লোকগানটিকে যথেষ্ট বিকৃত করে গাওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ জানায় বাংলার শিল্পীমহল। এছাড়াও ইউটিউবে কোথাও নাম ছিল না স্রষ্টা রতন কাহারের। পরে অবশ্য বিতর্কে জড়িয়ে বাদশা স্বীকার করে নেন যে, রতন কাহারকে স্বীকৃতি না দেওয়া ভুল হয়েছিল। পরে বাংলার লোকসঙ্গীত শিল্পীর কাছে তাঁর প্রাপ্য অর্থ পৌঁছে দিয়েছিলেন তিনি।

- Advertisement -

যদিও এখানেই শেষ নয়। অভিযোগ ছিল গানের তালে নৃত্যরত জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজের শারীরিক ভাবভঙ্গি নিয়েও। হিন্দি চটুল গানের মতো এই গানটিকেও যা মূলত পণ্যে পরিণত করেছে বলেই বিশ্বাস করেছিলেন বুদ্ধিজীবীরা। পরে তো আবার সামনে আসে এই গানের জন্যই পয়সা খরচ করে ‘ভিউয়ার’ কিনেছিলেন বলিউডের জনপ্রিয় র‌্যাপার-গায়ক। সেই অভিযোগে আবার যেন আগুনে ঘি পরে। আসল-নকলের চাহিদার পার্থক্য বোঝাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন সকলে। যদিও তা কয়েকদিনের হিড়িকের মতোই। করোনা আবহে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তের দাবির মতোই তা চাপা পড়ে যায়।

আবার সেই বিতর্ক মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। মূলে বাংলা ইন্ডাস্ট্রি। বর্তমান বাংলা চলচ্চিত্র জগতের জনপ্রিয় পরিচালক অরিন্দম শীলের পরিচালনায় বাদশার গাওয়া ‘গেন্দা ফুল’-এর ‘তবলা বিট রিমিক্স’ করলেন স্বনামখ্যাত তবলা বাদক বিক্রম ঘোষ। ‘সোনি মিউজিক ইন্ডিয়া’র ব্যানারেই তৈরি হয়েছে এই গান। গেয়েছেন জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত সঙ্গীতশিল্পী ইমন চক্রবর্তী। গানটির বর্ধিত বাংলা লিরিক্স লিখেছেন সুগত গুহ। ভিডিওতে জ্যাকলিনের মতো ভঙ্গীতেই দেখা গেছে বাঙালি অভিনেত্রী দেবলীনা কুমারকে।

- Advertisement -

চমক হিসেবে এই গানে অভিনয় করলেন রতন কাহার নিজেও। দু’কলি গানও গাইলেন। পাল্লা দিয়ে নাচলেন ভিডিয়োতে অভিনেত্রী দেবলীনার সঙ্গেও। আগের বাদশার গানের ভিডিওর মতো এই ভিডিওর থিমও প্রায় একই। তা সত্ত্বেও আগের বারের বিতর্কের নাম মাত্রও নেই এবারে। বরং ইউটিউবে রিলিজ করার দু’দিনের মধ্যেই ২৭ লক্ষেরও বেশি মানুষ দেখে ফেলেছেন।

যদিও এই ভিডিওতেও কিন্তু ‘লিরিক্স’-এর জায়গায় দেওয়া আছে বাদশার নাম! রতন কাহারকে দেখানো হয়েছে শুধুমাত্র অভিনেতা হিসেবেই। এবং আশ্চর্যজনকভাবে এই বিষয়ে সম্পূর্ন অন্ধকারে রতন কাহার এবং তার পরিবার। জানালেন যে এই বিষয়ে তারা কিছুই জানেন না। বিক্রম ঘোষ বা অন্যান্যদের সাথে কথা বলে দেখবেন। বলিউড র‌্যাপার কবে ‘গেন্দা ফুল’ গানটি লিখলেন তা নিয়ে ধন্ধে অনেকেই। আগের বার গানটিকে বিকৃত করেছিলেন একা বাদশা। এবার তাতে যোগ দিয়েছেন বিক্রম ঘোষও।

তাহলে বাদশার বেলায় গলা উঁচিয়ে প্রতিবাদ আর এবারে লক্ষাধিক ভিউ কেন? বাঙালি শিল্পীরা কি আরেক বাঙালি শিল্পীর সৃষ্টিকে বিকৃত করার অধিকার পায়? প্রশ্ন একাধিক। ইউটিউব ভিডিওতে প্রকাশিত গানটিকে মূলত দেখানো হয়েছে বাদশা এবং বিক্রম ঘোষের তৈরি ‘ফোক-ফিউশন’ হিসেবে। কিন্তু তাতে উধাও বাংলার লোকগানের সরলতাটাই। বরং আছে অহেতুক লম্ফঝম্প, চটুলতা, পদে পদে অরিজিনাল গানকে বিকৃত করার প্রমাণ। আর তাতে গলা মেলাতে দেখা গেলো স্বয়ং গানের স্রষ্ঠাকে। ভিডিওতে নাচলেনও কয়েক সেকেন্ডের জন্য।

বাদশার গানে তার নাম না থাকায় এর আগে দুঃখ প্রকাশ করেছিলেন রতন কাহার। বলেছিলেন তাঁকে না জানিয়ে গানটি ব্যবহার করা হয়েছে। এবার তাকেই সামনে রেখে বিকৃত করা হল গানটিকে। প্রমাণ হল, সৃষ্টি বনাম অর্থের লড়াইয়ে অর্থেরই জিত হয় প্রতিবার। সোজা বাংলায় বলতে গেলে, টাকা ফেলে মুখ বন্ধ করা একটি পুরোনো প্রথা। আর এবার শুধু মুখ বন্ধই নয়, টাকা ফেলে ব্যবস্থা করা হয়েছে নিজের লেখা গানে মুখ খুলে গলা মেলাতে। বাদশা তাকে অপমান করেছিলেন স্বীকৃতি না দিয়ে। বাংলার শিল্পীরা অপমান করলেন তাকে সরাসরি ভিডিওতে এনে।

প্রশ্ন উঠতে পারে যে, যদি পেটের টানে রতন কাহার রাজি হয়ে থাকেন তাতে ক্ষতি কী? কারণ যারা সমালোচনা করছেন, তারা তো দায়িত্ব নেননি পেট ভরানোর! কিন্তু প্রশ্নটা হলো বাদশার বিকৃত গানের প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে আবার সেই গানের আরেকটি বিকৃত গানকেই মাথায় তুলে নাচছেন ভক্তকূল। যদিও গানটি কতটা সুন্দর বা গ্রহনযোগ্য তা দিনের শেষে ঠিক করেন শ্রোতারাই। তাদের চাওয়াতেই দিনের শেষে জিতে যায় রিমিক্স ভার্সান, হারিয়ে যায় জনপ্রিয় অরিজিনাল গান।

ঠিক যেমনভাবে প্রতিদিন বারবার জিতে যায় পুঁজিবাদ, হেরে যান রতন কাহারের মতো মানুষেরা।

- Advertisement -

সপ্তাহের সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ

ইশা সাহার বিয়েতে কেন নিমন্ত্রন পেলেন না- প্রশ্ন মিমি চক্রবর্তীর

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেত্রী ইশা সাহা কে সরাসরি বিয়ে নিয়ে প্রশ্ন করলেন অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। ইশা একটি ভিডিও দেখে মিমির প্রশ্ন 'বিয়েতে ডাকলি...

আইআইটির ছাত্র হয়েও ঐচ্ছিক বিষয় ছিল নৃতত্ব, UPSC-র শীর্ষে শুভম

খাস খবর ডেস্ক: টানা তিন বছরের কঠোর পরিশ্রম। আর তাতেই অবশেষে লক্ষ্যভেদ করলেন বিহারের শুভম কুমার। শুক্রবার ইউপিএসসি সিভিল সার্ভিস ২০২০ পরীক্ষার রেজাল্ট বেরোনো...

‘মিঠাই’ সৌমিতৃষার মা কে ফোন করবেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

অর্পিতা দাস: মিঠাই রানী যেখানেই যান কথা দিয়ে সকলের মন ভালো করে দেন, এবার মোদক পরিবার কে নিয়ে মিঠাই পৌঁছে গেলেন দাদাগিরির সেটে। তবে...

টাকার লোভে স্বামীর সঙ্গে কিশোরীদের সঙ্গমে বাধ্য করেন স্ত্রী

খাস খবর ডেস্ক: উচ্চ পদস্থ চাকরি করেন স্বামী। সরকারি দফতরের পদস্থ আধিকারিক। সেই ব্যক্তির স্ত্রী টাকার লোভে স্বামীর বিছানায় পাঠায় অন্য মহিলা। যাদের সকলের...

খবর এই মুহূর্তে

দরজা খুলতেই ছুটে এল গুলি, মৃত এক, জখম দুই, চাঞ্চল্য এলাকায়

রায়গঞ্জ: ঘড়ির কাঁটায় তখন রাত প্রায় ১০টা৷ অসময়ে বেজে উঠল কলিংবেলটা৷ অ্যাতো রাতে কে এল, কি দরকার- সাত, পাঁচ ভাবতে ভাবতে তাড়াহুড়োয় দরজা খুলতেই ওপাশ...

বিজেপির নীতির কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে ‘নারীদের ক্ষমতায়ন’: JP Nadda

নয়াদিল্লি: ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে ফের একবার ভারতে ক্ষমতায় আসাই বিজেপির প্রধান লক্ষ্য। সেই লড়াইয়ের প্রস্ততি শুরু হয়ে গিয়েছে এখন থেকেই। আগামী নির্বাচনে বিজেপিকে...

কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপস্থিতি সহ ১৪৪ ধারা জারি করে ভোট হোক ভবানীপুরে, দাবি বিজেপির

কলকাতা: ভবানীপুরে শেষ লগ্নের প্রচার যুদ্ধ দিয়েই শেষ হয়েছে সোমবার। আর মাত্র দু রাতের অপেক্ষা তার পরেই হতে চলেছে হটস্পট ভবানীপুরে উপ নির্বাচন যা...

রুদ্রর জীবনে অন্য নারী- মেনে নিচ্ছেন না মিঠাই অনুরাগীরা

অর্পিতা দাস: জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক মিঠাইতে দর্শকদের অন্যতম প্রিয় জুটি রুদ্র এবং নীপা। রুদ্রর জীবনে অন্য কোন নারী? কিছুতেই মেনে নিচ্ছেন না দর্শকেরা। রুদ্র...