ক্লাস টেনের পর থেকেই একা থাকতেন মিমি চক্রবর্তী

0
78

এন্টারটেনমেন্ট ডেস্ক: অনেক ছোটবেলা থেকেই নিজের দায়িত্ব নিজে নিতে শিখেছেন সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। ছোটবেলায় খুব শাসনের মধ্যে মানুষ হলেও ক্লাস ইলেভেন থেকেই পেয়িং গেস্টে থাকা শুরু এবং তখন থেকেই নিজের দায়িত্ব নিতে শিখে গেছিলেন এই অভিনেত্রী।

মাত্র একদিন পরেই মুক্তি পাচ্ছে মৈনাক ভৌমিক পরিচালিত মিনি। এই ছবিতে তিতলির চরিত্রে অভিনয় করছেন মিমি, তিতলি ও তার দিদির মেয়ে মিনির জীবনকে কেন্দ্র করেই এই ছবির গল্প। অনেক কম বয়সেই বড় দায়িত্ব নিতে হচ্ছে তিতলি কে। খাসখবরের সঙ্গে এই ছবির বিষয়ে কথা বলার সময় মিমি জানান, ব্যক্তিগত জীবনেও অনেক ছোট থেকেই নিজের দায়িত্ব নিজে নিতে শিখে ছিলেন মিমি চক্রবর্তী।

যদিও ছোটবেলা থেকে মা বাবার কড়া শাসনে মানুষ হয়েছেন তিনি, Do’s and Dont’s এর লম্বা তালিকা ছিল তার জন্য। তবে ক্লাস টেনের পর থেকেই পেয়িং গেস্টে থাকা শুরু করেন মিমি এবং সেই প্রথম হয়তো স্বাধীনতার স্বাদ পাওয়া। মূলত স্কুল বদল হওয়ার কারণেই বাড়ির বাইরে থাকতে হয় মিমিকে এবং যেহেতু একা থাকতেন, সেই সময় থেকেই নিজের দায়িত্ব নিতে শিখে গেছিলেন এই অভিনেত্রী। প্রথমদিকে ধৈর্যশক্তি তেমন না থাকলেও যত সময় গেছে ততই সহ্য শক্তি এবং ধৈর্য ধরার ক্ষমতা বেড়েছে মিমির।

বাস্তবেও তিনি তার দুই পোষ্যর মা, কাজ সামলে পরিবারের প্রিয়জনদের বন্ধু-বান্ধবদের জন্য আজও ঠিক সময় বের করে নেন মিমি। একসঙ্গে অনেক দায়িত্ব থাকলেও এই ক্ষেত্রে কখনোই কোনো অসুবিধা হয়নি বলে জানিয়েছেন মিমি চক্রবর্তী। মিনি ছবির মাধ্যমে প্রত্যেক মায়েদের ধন্যবাদ জানাতে চান মিমি, মায়েদের কাজ নিয়ে কখনো কোন কথা হয়না, বিশেষ করে দিনের পর দিন সন্তানকে মানুষ করার জন্য যে সময় যে পরিশ্রম ব্যয় করেন তারা, তা নিয়েও কখনো কথা হয় না। তাই মা-বাবার সঙ্গে সন্তানকে নিয়ে এই ছবি দেখার অনুরোধ জানাচ্ছি মিমি চক্রবর্তী এবং মৈনাক ভৌমিক।