সর্বসমক্ষে একে অপরকে চড় মারলেন দেব রুক্মিণী

0
1751

অর্পিতা দাস: প্রেম থেকে একবারে সর্বসমক্ষে একে অপরের গায়ে হাত তুললেন দেব রুক্মিণী। কেউ কারো থেকে কম যান না, হঠাৎ এমন কি হলো যে একে অপরের গায়ে হাত তুলতে বাধ্য হলেন টলিউডের এই জনপ্রিয় জুটি?

কলেজে দেখা হওয়ার পর হাসি বিনিময় এর বদলে একে অপরের গালে সপাটে চড়, এককথায় হাতাহাতি শুরু দেব রুক্মিণীর মধ্যে। তাদের সামলাচ্ছেন কলেজের বাকি বন্ধুরা। কি ভাবছেন? আজ থেকে অনেক বছর আগের কোন ঘটনা শেয়ার করছি আপনাদের সঙ্গে? ঠিক‌ই ধরেছেন এই ঘটনা আসলে ২০১৪ সালের। তবে এই গল্প দেব এবং রুক্মিণীর নয়, এই গল্প হল কৃশানু চট্টোপাধ্যায় এবং রোহিনী সেনের। রাহুল মুখোপাধ্যায় পরিচালিত কিশমিশের ট্রেলার দেখে কলেজের প্রেমের কথা মনে পড়তে বাধ্য।

ঝগড়া থেকে প্রেম সেই প্রেম থেকে আবার বিচ্ছেদ- এই নস্টালজিয়ায় ফিরিয়ে দিলেন দেব এবং রুক্মিণী। এক মিষ্টি প্রেমের ছবি- যে প্রেম হয়তো শুধুমাত্রই বাংলা ছবিতে নয় হারিয়ে গেছে আমাদের জীবন থেকেও। প্রেমের ব্যথা অনুভব করতে প্রায় ভুলেই গেছি আমরা। সেই সময়ই প্রথম প্রেমের স্মৃতি মনে করাতে হাজির কৃশানু এবং রোহিনী। মারপিটের পর প্রেমটা হয়ে গেলেও এত সহজে কাছাকাছি আর আসা হলো না এই দুজনের। তবে তাদের প্রেম কি অসম্পূর্ণ রয়ে গেল? ট্রেলার দেখে এই প্রশ্ন‌ই ঘুরে ফিরে আসবে বারবার।

তবে চরিত্রের খাতিরে হলেও একে অপরের গালে বেশ কয়েকবার চড় মারতে হয়েছে দেব এবং রুক্মিণীকে। রুক্মিণীর কথায় অবশ্য, বাস্তবে যা হয় না মাঝে মাঝে সেই ইচ্ছেগুলো সিনেমাতে পূরণ হয়ে যায়। এটাও হয়তো তার মধ্যে একটা। তবে শুধুই ঝগড়া নয়, পাহাড়ে দুই কলেজ পড়ুয়ার প্রেমের ভাঙা গড়ার খেলা এবং সঙ্গে আরো অনেক টুইস্ট নিয়ে আসছে কিশমিশ। ভালোবাসি না বলেও অনেক ভালোবাসা হয়ে যায় আবার কিছু ভালোবাসা অসম্পূর্ণ থেকে যায়, ঠিক কোন ভালোবাসার গল্প বলতে আসছে কৃশানু এবং রোহিণী, জানতে হলে অবশ্যই ২৯ এপ্রিল হলে গিয়ে দেখতে হবে কিশমিশ।