ব্রিটনি স্পিয়ারসের অন্দরমহলে আড়ি পেতে গারদে প্রাক্তন স্বামী

0
133

বিনোদন ডেস্ক : সদ্যই ব্রিটনি স্পিয়ারস-এর বিয়ের খবরে হইচই পড়েছে নেটদুনিয়ায়। তবে বিয়ের কিছু ঘন্টা আগেই ব্রিটনির বিয়েকে কেন্দ্র করে ঘটে যাওয়া ঘটনা এখন ভাইরাল। গায়িকার প্রাক্তন স্বামী নিমন্ত্রিত নন তবু গেট ক্র‍্যাশ করে ঢুকে পটলেন বিয়ের আসরে। ফুলের সাজ থেকে সমস্ত ডেকরেশন প্রচারিত হচ্ছে লাইভ স্ট্রিমে। আর লাইভ স্ট্রিম প্রচার করছেন স্বয়ং তাঁর প্রাক্তন স্বামী।

- Advertisement -

শুধু লাইভ স্ট্রিমই নয়, সাজসজ্জার রীতিমতো সমালোচনা করে কুরুচিকর মন্তব্য করতেও আটকাচ্ছেন না। হইচই কাণ্ড পড়ে গেল ব্রিটনির বিয়ের আসরে। এরপরেই নিরাপত্তা বাহিনীর মুখোমুখি। কোনোরকমে ধরপাকড় করে সোজা গারদে ঢোকানো হল তাঁকে। সমস্ত ঘটনাটাই দেখা যাচ্ছে লাইভ স্ট্রিমে। নিরাপত্তা বাহিনীকে চিৎকার করে তাঁকে ছুঁতে বারন করছেন। পাশাপাশি নিরাপত্তারক্ষীদের নিষেধাজ্ঞা রীতিমতো অবজ্ঞা করে খুঁজে চলেছেন ব্রিটনিকে।

২০০৪ সালের বিখ্যাত ৫৫ ঘন্টার বিবাহ ব্রিটনি এবং জেসন আলেক্সান্ডারের। বর্তমানে প্রাক্তন স্বামী জেসন এখন গেট ক্রাশ করে আবার শিরোনামে। তাঁর এই কাণ্ডের জেরে তাঁকে ব্রিটনির লস এঞ্জেলসের বাড়ি থেকে আটক করে পুলিশ। যদিও তিনি দাবি করতে থাকেন, তাঁকে স্বয়ং প্রাক্তন স্ত্রী ব্রিটনি নাকি নিমন্ত্রণ করেছেন। আরও জানা গিয়েছে, তিনি দাবি করেন টানা তিনদিন ধরে নিরাপত্তারক্ষীদের চোখ এড়িয়ে বিয়ের আসরে উপস্থিত হচ্ছিলেন। এমনটাই জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শী।

অন্যদিকে, মাত্র ১০০ জনের নিমন্ত্রণে বিয়ে সেরে ফেলার ইচ্ছা ছিল ব্রিটনির। কিন্তু এখন এই কাণ্ডের জেরে তাঁর বিয়ের সব তথ্যই নেটদুনিয়ায় ফাঁস হয়ে গিয়েছে। বৃহস্পতিবার স্যাম আসগারির সঙ্গে বিয়ের ঠিক ব্রিটনির কিন্তু জেসনের লাইভ স্ট্রিমের চক্করে মাথায় হাত পড়েছে গায়িকার। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই বিষয়ে অনুসন্ধান চালাচ্ছেন তাঁরা। অনধিকার প্রবেশ এবং সমস্ত তথ্য ফাঁস ছাড়াও অন্য কোনো কিছু করেছেন কিনা বা করার উদ্দেশ্য ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।