পিছিয়ে পড়েছে পড়ুয়ারা, রবিবারও খোলা থাকবে স্কুল

0
126

অশোকনগর: সাকুল্যে ৫৫ দিন পর খুলল স্কুল৷ স্বভাবতই খুশির আমেজ পড়ুয়া থেকে শিক্ষক মহলে৷ তবে এবার আর সোম থেকে শনি নয়, বরং এখন থেকে রবিবারও হবে স্কুল৷ পড়ুয়াদের স্বার্থেই এমন সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে কলকাতা ও জেলার একাধিক স্কুল৷ শিক্ষকদের যুক্তি, টানা লম্বা ছুটিতে পড়ুয়াদের একাংশ অনেকখানি পিছিয়ে পড়েছে৷ তাদের স্বার্থেই এখন থেকে শনিবার স্কুল ছুটির পরও হবে স্পেশ্যাল ক্লাস৷ স্কুল হবে রবিবারও৷ বস্তুত, এই বিষয়ে সরকারের তরফ থেকে কোনও নোটিস জারি হয়নি। তবে যে সব পড়ুয়া দুর্বল তাদের কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন একাধিক স্কুলের প্রধান শিক্ষকেরা৷

তেমনই একটি স্কুল হল অশোকনগর বিদ্যাসাগর বাণী ভবন হাইস্কুল৷ স্কুলের প্রধান শিক্ষক মনোজ ঘোষ বলেন, ‘‘প্রায় দু’মাস স্কুল ছুটি ছিল৷ এই সময়টাতে অনেকেই হয়তো বাড়িতে ঠিকমতো পড়াশোনা করতে পারেনি৷ তাই যে সকল পিছিয়ে পড়া ছাত্র-ছাত্রীরা রয়েছে তাদের কথা মাথায় রেখে শনিবার ও রবিবার আমরা স্কুল খোলা রেখে স্পেশাল ক্লাস করব৷’’ এজন্য প্রতিটি শিক্ষকই তাঁর পড়ুয়াদের দিকে মনোযোগ দেবেন৷ যারা পিছিয়ে পড়েছে তাদের চিহ্নিত করে আনা হবে শনি ও রবিবারের স্পেশ্যাল ক্লাসে৷

- Advertisement -

তবে অবশেষে স্কুল খোলায় খুশী সব মহলই৷ শিক্ষকদের কথায়, ‘‘বন আছে কিন্তু সেখানে পাখির ডাক না থাকলে যেমন সেই বনের কোনও অর্থ থাকে না, স্কুলের অবস্থাও তেমন হয়েছিল৷ অবশেষে আবার গমগমে পরিবেশে ফিরল স্কুল৷’’ খুশী পড়ুয়ারাও৷ ষষ্টশ্রেণির তৃষা হালদার বলেন, ‘‘স্কুলটাকে খুব মিস করতাম৷ এদিকে গরমও ছিল৷ তবে এখন থেকে স্কুল এমন চালু থাকলে ভাল হয়৷’’ আরেক পড়ুয়ার কথায়, ‘‘বাড়ির মধ্যে যতই পড়ি স্কুলের পরিবেশ তো আর বাড়ি বসে হবে না৷ তাই কবে স্কুল খুলবে সেদিকে মুখিয়ে ছিলাম আমরা৷’’

তবে রবিবারও স্কুল খোলা নিয়ে মত পার্থক্য তৈরি হয়েছে অভিভাবক মহলে৷ তাঁদের একাংশের কথায়, টানা ৫৫ দিন স্কুল বন্ধ রেখে এবার যদি সপ্তাহে সাতদিনই স্কুল চালু রাখা হয়, সেক্ষেত্রেও এটা বাড়তি বোঝা হয়ে দাঁড়াতে পারে পড়ুয়াদের কাছে৷ পাল্টা মতও উঠে আসছে৷ ওই মহলের মতে, কারও নিজের ইচ্ছেই নয়, সরকারের নির্দেশেই বন্ধ ছিল স্কুল৷ ফলে এখন দোষারোপ না করে পড়ুয়াদের যাতে নতুন করে কোনও ক্ষতি না হয়, সেদিকেই বাড়তি নজরদারি তৈরি করতেই রবিবারেও স্কুল খোলার পরিকল্পনা৷ তবে দীর্ঘ অনভ্যস্ততার পর পড়ুয়ারা এই চাপ কিভাবে সামলায় তা নিয়ে উদ্বেগ থাকছেই৷

আরও পড়ুন: বর্ষা আসতেই বাড়ছে সাপের উপদ্রব, আতঙ্কে ঘরছাড়া পরিবার