পুজোর আগে হচ্ছে না নিয়োগ, কারণ জানতে শিক্ষা দফতরে চাকরি প্রার্থীরা

0
14

পলাশ নস্কর, কলকাতা: যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও মেলেনি চাকরি৷ টানা ৫৬১ দিন ধরে রাজপথে বসে চলছে আন্দোলন৷ কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের হুঁশিয়ারির পর মন্ত্রীর টনক নড়লেও শিক্ষা দফতরের দায় সারা মনোভাব অব্যাহত৷ এমনকি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, শিক্ষামন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীর আশ্বাসের পরও অব্যাহত টালবাহানা৷ এই অভিযোগে এবং ঠিক কবে থেকে শুরু হবে নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষক নিয়োগ (Recruitment) প্রক্রিয়া, জানতে দেবীপক্ষের সূচনায় সোমবার শিক্ষা দফতরে হানা দিলেন চাকরি প্রার্থীরা৷

বস্তুত, কলকাতা গান্ধী মূর্তির কাছে ৫৬১ দিন ধরে বিক্ষোভরত নবম থেকে দ্বাদশ এসএলএসটি(SLST) চাকরি প্রার্থীদের আশ্বাস দেওয়ার পরেও এখনও তাঁরা পাইনি নিয়োগ। কেন নিয়োগ হয়নি তা জানতে এদিন শিক্ষামন্ত্রীর দ্বারস্থ হয় চাকরি প্রার্থীরা। আন্দোলনকারীদের তরফে শেখ সহিদুল্লা বলেন, গত শুক্রবার শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছিল৷ উনি শিক্ষা দফতরকে লিখিতভাবে নির্দেশও দিয়েছিলেন৷ কিন্তু আজ পর্যন্ত নিয়োগের বিষয়ে শিক্ষা দফতরের কোনও পদক্ষেপ আমরা জানতে পারিনি৷ ফলে আমাদের মধ্যে নানা বিষয়ে আশঙ্কা তৈরি হচ্ছে৷

- Advertisement -

কি সেই আশঙ্কা, সেটা স্পষ্ট করেছেন সহিদুল্লা, ‘‘নবম থেকে দ্বাদশ নিয়োগ প্রক্রিয়া একসঙ্গে হচ্ছে নাকি খাপছাড়াভাবে হচ্ছে সেটা জানা জরুরি৷ এত গোপনীয়তা কেন? কেন নিয়োগে এমন গড়িমসি? তাহলে কি পুরনো সেই তালিকা, যেটা দেখে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় ভাঁওতাবাজি বলেছিলেন, সেই তালিকা ধরেই নিয়োগের চেষ্টা হচ্ছে৷ নাকি মিটিংয়ের পর যে মেধাতালিকা তৈরি করা হয়েছিল ৩৩৯৯ জন সহ মোট ৫৫৭৮ কে একই সঙ্গে চাকরিতে নিয়োগের নোটিফিকেশন করা হবে, এটা আমাদের কাছে স্পষ্ট নয়৷ সেটা জানার জন্যই আসা৷’’

চাকরি প্রার্থীদের কথায়, ‘‘আমরা ভেবেছিলাম, পুজোর আগেই নিয়োগ পাব৷ কিন্তু শিক্ষা দফতরের গাফিলতিতে পুজোর আগে আর নিয়োগ (Recruitment) হচ্ছে না৷ অন্তত, নোটিফিকেশনটা পুজোর আগে করুক৷ মেধাতালিকায় থাকা চাকরি প্রার্থীদের নতুন করে যেন বঞ্চিত না করা হয়, আমরা এটাই বলতে এসেছি৷’’ এদিন সংগঠনের চার সদস্যের সঙ্গে বৈঠকে বসেন শিক্ষা দফতরের কর্তারা৷ বৈঠক শেষে চাকরিপ্রার্থীরা বলেন, অতীতের মতো এবারেও ওরা আমাদের মৌখিকভাবে আশ্বস্ত করেছেন৷ দেখা যাক কি হয়!

আরও পড়ুন: মদ্যপায়ীদের জন্য সুখবর, এবার হাত বাড়ালেই মদ রেশন দোকানে

downloads: https://play.google.com/store/apps/details?id=app.aartsspl.khaskhobor