পাতুরি-সর্ষে তো অনেক হল, অষ্টমীর দুপুরে পরিবেশন ভেটকির কাঁটা চচ্চড়ি

0
20

খাস ডেস্ক: এমন বাঙালি কম আছে, যাদের যেকোনও মাছ খেতে ভালো লাগে না। বেশির ভাগ বাঙালিরই মাছ প্রিয়। সেটা রুই, কাতলা, চিতল, বা ভেটকি হোক না কেন। তবে মাছের ঝোল বা ঝাল তো আমরা সব সময় খেয়েই থাকি। কিন্তু একঘেয়ে রান্না খেতে সব সময় ভালোও লাগে না। আর সামনেই পুজো। তাই নতুন নতুন রান্না হলে বেশ ভালোই হয়।

https://play.google.com/store/apps/details?id=app.aartsspl.khaskhobor

- Advertisement -

কিন্তু চিন্তা একটাই, নতুন রান্নার রেসিপি কোথায় পাবেন। তবে আর চিন্তার কারণ নেই। মাছ খাওয়াই হোক বা বাড়িতে বন্ধুদের ডেকে খাওয়ানোই হোক না কেন, বা পুজোর দিন দুপুরে খুব সহজেই মাছের এই রেসিপি মন জয় করবে সকলের। ভেটকি মাছের পাতুরি তো সবসময় খেয়েই থাকেন। এবার ট্রাই করুন ভেটকির কাঁটা চচ্চড়ি। খুব সহজেই বাড়িতে বানিয়ে নিতে পারবেন এই রেসিপি। চলুন তাহলে দেখে নিন, কিভাবে বানাবেন এই ভেটকির কাঁটা চচ্চড়ি…

উপকরণ:

ভেটকি মাছের কাঁটা
পেঁয়াজ বাটা ৪ টেবিল চামচ
আদা বাটা ১ টেবিল চামচ
রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ
টমেটো বাটা তিন টেবিল চামচ
কাঁচা লঙ্কা বাটা
তেজপাতা
এলাচ
লবঙ্গ
দারচিনি
হলুদ গুঁড়ো এক চা-চামচ লঙ্কাগুঁড়ো স্বাদ মত
নুন , মিষ্টি স্বাদ মত
জিরে গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ
ধনে গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ
ধনেপাতা স্বাদমতো
সরষের তেল ৫ টেবিল চামচ

আরও পড়ুন-ষষ্ঠীরদিনে সকালে সুস্বাদু নিরামিষ রান্না, বানিয়ে ফেলুন ছানার এই রেসিপি

পদ্ধতি:
১, প্রথমে কড়াইতে সরষের তেল গরম করে মাছের কাঁটাগুলি হালকা ভেজে তুলে রাখতে হবে।
২, এরপর তেজপাতা, এলাচ, লবঙ্গ, দারচিনি ,শুকনো লঙ্কা দিয়ে পেঁয়াজ বাটা, আদা বাটা, রসুন বাটা, টমেটো বাটা এবং সমস্ত গুঁড়ো মশলা দিয়ে ভালো করে কষাতে হবে। কষানো হয়ে গেলে নুন, মিষ্টি স্বাদ মত দিয়ে মাছের কাঁটাগুলি দিয়ে দিতে হবে। ৩, এরপর সামান্য উষ্ণ জল দিয়ে ঢাকা দিয়ে রাখতে হবে। ঢাকা খুলে উপরে ধনেপাতা কুচি সামান্য গরম মশলার গুঁড়া এবং লঙ্কা দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন ভেটকি মাছের কাঁটা চচ্চড়ি।