টেট দুর্নীতির রিপোর্ট পেশ সিবিআইয়ের, ঠিক কতজন চাকরি হারাতে চলেছেন…

0
17

কলকাতা: এ যেন কেঁচো খুড়তে গিয়ে আক্ষরিক অর্থেই কেউটে বেরিয়ে পড়ার উপক্রম৷ প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির মামলায় বুধবার মুখবন্ধ জোড়া খামে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের বেঞ্চে রিপোর্ট জমা দিল সিবিআই (CBI)৷ সূত্রের খবর, এদিন টেট কেলেঙ্কারির রিপোর্ট পেশ করতে গিয়ে সিবিআইয়ের তরফে বিচারপতিকে যা বলা হয়েছে, তার সারাংশ করলে দাঁড়ায়, নিয়োগ দুর্নীতির ‘চেহারা’ দেখলে যে কারও গা শিউড়ে ওঠাটাই স্বাভাবিক৷ যা শুনে চমকে উঠেছেন বিচারপতিও৷

কেমন সেই দুর্নীতি? সিবিআই সূত্রের খবর, পরীক্ষায় না বসেই চাকরি পেয়েছেন এমন সংখ্যাটা শুনলেই চমকে ওঠার জন্য যথেষ্ঠ৷ তদন্তকারী দলের এক সদস্যের কথায়, ‘‘টেট নিয়োগের পরতে পরতে ছড়িয়ে রয়েছে দুর্নীতি৷ আমরা যত দেখেছি ততই অবাক হয়েছি৷’’ বস্তুত, নিয়োগ কেলেঙ্কারির জেরে ইতিমধ্যে জেল ‘খাটছেন’ রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷ সবান্ধবী পার্থর কাছ থেকে বাজেয়াপ্ত হওয়া সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ১০৩ কোটি৷ তদন্তকারীদের মতে, যা থেকে স্পষ্ট টাকার বিনিময়ে মুড়ি মুড়কির মতো বিলি করা হয়েছে নিয়োগ পত্র৷ একই সঙ্গে সামনে এসেছে ঘনিষ্ঠজনদের পিছনের দরজা দিয়ে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার ঘটনাও৷

- Advertisement -

বস্তুত, রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের দেহরক্ষী বিশ্বম্ভর মণ্ডলের ১০ জন ঘনিষ্ঠকে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে৷ এদিন ওই প্রসঙ্গটিও ওঠে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের বেঞ্চে৷ তিনি, মামলাকারীদের আইনজীবীদের পর্ষদ অফিসে গিয়ে নথি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেন৷ আগামী ৪ নভেম্বর এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে৷ এদিন বেআইনি নিয়োগ সংক্রান্ত একটি মামলার শুনানিতে নবম এবং দশম শ্রেণির শিক্ষক হিসেবে কত জনকে বেআইনি ভাবে নিয়োগ করা হয়েছে, তার তালিকা এসএসসি এবং সিবিআইয়ের (CBI) কাছে চেয়ে পাঠিয়েছেন তিনি৷ এক সপ্তাহের মধ্যে তাঁদের তালিকা আদালতে জমা দেওয়ার জন্য দুই সংস্থাকে এদিন নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি৷ তারই মাঝে টেট কেলেঙ্কারিতে সিবিআইয়ের রিপোর্ট পেশ৷ যার জেরে মনে করা হচ্ছে, পিছনের দরজা দিয়ে চাকরি পাওয়া প্রত্যেকের চাকরি যাওয়াটা এখন স্রেফ সময়ের অপেক্ষা৷

আরও পড়ুন: রাজ্য রাজনীতিতে জোর চাঞ্চল্য, দলত্যাগ বিরোধী আইনে খারিজ বিধায়কের পদ

downloads: https://play.google.com/store/apps/details?id=app.aartsspl.khaskhobor