নাবালিকাকে অপহরণ করে একাধিক বার ধর্ষণ, গ্রেফতার বাড়ির গাড়ির চালক সহ ৪

0
79
Rape

পানাজি: দেশে ক্রমেই বেড়ে চলেছে নারী নির্যাতনের ঘটনা। বিশেষ করে কিছু বিকৃত মস্তিস্কের মানুষের যৌন লালসার শিকার হচ্ছে নাবালিকারা। এই বিষয়ই এখন সমাজের কাছে বড় চিন্তার বিষয় হয়ে উঠেছে। ১৭ বছরে এক নাবালিকাকে একাধিকবার অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে পারিবারিক গাড়ির চালক সহ চারজনকে।

ঘটনাটি ঘটেছে গোয়ার ভাস্কো শহরে। পুলিশ জানিয়েছে ১৭ বছরের এক নাবালিকাকে বারবার অপহরণ করে এবাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে বাড়ির গাড়ির চালকের বিরুদ্ধে । ভাস্কোর পুলিশ ইন্সপেক্টর কপিল নায়েক জানিয়েছেন, “গত ১১ আগস্ট মেয়েটি তার বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়েছিল। মেয়েটির নিখোঁজ হওয়ার পরে, তাঁর মা মিসিং রিপোর্ট দায়ের করেছিলেন।”তদন্তের সময়, নাবালিকাকে ভাস্কো থানার আওতাধীন একটি এলাকায় সনাক্ত করা হয়েছিল এবং মঙ্গলবার তাকে উদ্ধার করা হয়েছিল। উদ্ধার হওয়ার পর পুলিশকে দেওয়া বয়ানে ওই নাবালিকা জানিয়েছে, চার অভিযুক্ত তাকে পৃথক সময়ে ধর্ষণ করেছে। অভিযুক্তদের মধ্যে তার পরিবারের চালকও রয়েছে বলেই জানায় নির্যাতিতা। সেই বয়ানের উপরে ভিত্তি করেই বাড়ির গাড়ির চালক সহ চার ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে পুলশ।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালের সুরক্ষায় ত্রুটি, সরানো হল ৩ কমান্ডোকে

ভাস্কো পুলিশ চার অভিযুক্তের পরিচয় প্রকাশ করেছে। পুলিশ চাপ অপরাধীকে মুকুন্দ রাওয়াল (৩৫), গুরুভেঙ্কটেশ গুরুস্বামী ( ৩৫), কুশ জয়সওয়াল (৩০) এবং আফতার হুসেন (২৩) নামে চিহ্নিত করেছে। তাদের সকলের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ (ধর্ষণ) এবং ৩৬৩ (অপহরণ) এবং যৌন অপরাধ থেকে শিশুদের সুরক্ষা (পকসো) আইন এবং গোয়া শিশু আইনের অধীনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই ঘটনার সঙ্গে বাড়ির গাড়ির চালক যুক্ত থাকায় স্বাভাবিক ভাবেই নির্যাতিতার পরিবাররে সকলেই অবাক হয়ে গিয়েছেন।