খুলেছে সার্ভার রুম, শীঘ্রই চাকরির নিয়োগপত্র হাতে পাবেন বাকি বঞ্চিতরাও

0
18

কলকাতা: চোখের সামনে দুর্নীতি হতে দেখে স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলেন শিক্ষিতা তরুণী৷ বিপক্ষে যিনি ছিলেন, তিনি আবার যে সে কেউ নয়৷ একেবারে মন্ত্রী কন্যা বলে কথা৷ তবে কোনও কিছুর পরোয়া না করে আদালতের চৌকাঠে কড়া নেড়েছিলেন তিনি৷ অবশেষে লড়াইয়ে জয় এসেছে৷ বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের নির্দেশে চাকরি খোয়াতে হয়েছে মন্ত্রী পরেশ অধিকারীর মেয়ে অঙ্কিতাকে৷ এবার মন্ত্রী কন্যার সেই পদেই নিয়োগের সুপারিশ পত্র হাতে পেলেন বঞ্চিত থাকা এসএসসি চাকরিপ্রার্থী ববিতা সরকার।

আজ সল্টলেক আচার্য সদনে তিনি এসে তার সুপারিশ পত্র হাতে নেন। ববিতা বলেন, মেখলিগঞ্জ ইন্দিরা গার্লস হাইস্কুলে শিক্ষকতা করতে চান এবং সেখানে তাকে নিয়োগ পত্র দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে পর্ষদের তরফে। বস্তুত, মহামান্য কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ ছিল যে পরেশ অধিকারীর মেয়ে কে সরিয়ে দিয়ে বহাল করতে হবে ববিতা সরকারকে।

সেইমতো আদালতের নির্দেশ মেনে স্কুল সার্ভিস কমিশনের পক্ষ থেকে আজ সুপারিশ পত্র তুলে দেওয়া হয় ববিতা সরকারের হাতে। পর্ষদ সূত্রের খবর, বাকি যারা বঞ্চিত আছেন তাদেরও খুব শীঘ্রই চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দেওয়া হবে। কারণ এতদিন সার্ভার রুম বন্ধ থাকায় কাজ এগোয়নি। এবার সার্ভার রুম খুলে দেওয়া হয়েছে। তাই যারা যারা বঞ্চিত আছেন, তাঁরা খুব শীঘ্রই চাকরি পাবেন বলে জানিয়েছেন ববিতা। একই সঙ্গে বিচারকের উদ্দেশ্যে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেছেনে, এখনও কিছু সৎ, ভাল মানুষ আছেন বলেই সমাজটা এখনও টিকে রয়েছে৷

আরও পড়ুন: পিএসির চেয়ারম্যান পদ থেকে ইস্তফা মুকুল রায়ের