ভিভিআইপি ‘অপরাধী’দের ‘সেফজোন’ SSKM, বোঝাল AIIMS

0
33

কলকাতা: এসএসকেএম কি সত্যিই ভিভিআইপি ‘অপরাধী’দের জন্য ‘সেফজোন’? তা না হলে হেফাজতে এলেই কেন এসএসকেএমে যাওয়ার জন্য চিৎকার শুরু হয়? মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের অসুস্থতা নিয়ে আদালতে নিজেদের সন্দেহের কথা জানিয়েছিল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডি৷ ইডির সেই সন্দেহ দূর করতে হাই-প্রোফাইল ‘আসামী’ পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে কলকাতা থেকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ভুবনেশ্বরে এইমসে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ জারি করেছিলেন বিচারপতি৷ বিচারপতির সেই সন্দেহ যে অমূলক ছিল না, তা স্পষ্ট হয়ে গেল ভুবনেশ্বর এইমসে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জন্য গঠিত বিশেষ মেডিক্যাল বোর্ডের রিপোর্ট থেকেই৷

AIIMS-এর চিকিৎসকরা সাফ জানিয়েছেন, পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে ভর্তি করার মতো কোন সমস্যা দেখা যায়নি। তার পুরনো রোগ আছে সেটার জন্য পার্থ চট্টোপাধ্যায় ওষুধ খান৷ পাশাপাশি তার ব্লাড টেস্ট, সুগার টেস্ট, ইসিজি, ইকো টেস্ট সহ আরও বিভিন্ন রকমের টেস্ট হয়েছে। তবে ভর্তি করার মতো গুরুতর কোনও অসুস্থতা নেই৷ সূত্রের খবর, নিজেদের যাবতীয় পর্যবেক্ষণ আদালতে পাঠাচ্ছেন এইমস কর্তৃপক্ষ৷ যার জেরে এবার আদালতের প্রশ্নের মুখে পড়তে হতে পারে এসএসকেএম হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে৷ এমনটাই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল৷

- Advertisement -

কারণ, ওই মহলের মতে, এর আগে মদন মিত্র থেকে অনুব্রত মণ্ডল, সিবিআই কিংবা ইডি, কোনও হেফাজতে গেলেই রেহাই হিসেবে বেছে নিয়েছেন এসএসকেএম৷ পার্থবাবুর ক্ষেত্রেও তার অন্যথা হয়নি৷ স্বভাবতই, এই ধারা অব্যাহত থাকায় আদতে এসএসকেএমের বদনাম হচ্ছে বলেই মনে করছেন সংশ্লিষ্ট হাসপাতালের একাংশ চিকিৎসক৷ তাঁরা বলছেন, চিকিৎসাশাস্ত্রের পাঠ নেওয়ার সময় ব্রত হিসেবে রোগীর চিকিৎসা করার কথা বলা আছে৷ কোথাও তো লেখা নেই নেতা, মন্ত্রী কিংবা ভিভিআইপি-দের তোষামোদ করতে হবে৷ কিন্তু প্রকারন্তরে সেটাই করতে হচ্ছে৷

বস্তুত, পার্থবাবুর অসুস্থতা নিয়ে এসএসকেএমের তরফে দেওয়া রিপোর্টের সঙ্গে ভুবনেশ্বরের এইমসের গঠিত মেডিক্যাল বোর্ডের রিপোর্টে ঠিক কতখানি ফারাক রয়েছে, তা নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ শুরু হয়েছে৷ যার ভিত্তিতে আগামীদিনে আদালতের বড়সড় প্রশ্নের মুখে পড়তে পারে এসএসকেএম কর্তৃপক্ষ, এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক মহল৷

আরও পড়ুন: শিক্ষাঙ্গনে শূন্য পদ কত, জানতে চেয়ে রাজ্যকে নির্দেশ বিচারপতির