১৬ বছরের কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার নাবালক

0
15

জয়পুর: গণধর্ষণের ঘটনা নিয়ে দিনে দিনে চাপ বাড়ছে অশোক গেহলটের কংগ্রেস সরকারের। দিনে দিনে মরু রাজ্যে বেড়েই চলেছে ধর্ষণ ও গণধর্ষণের ঘটনা। এবার যে ঘটনা সামনে এসেছে তা জেনে হতবাক হয়েছেন অনেকেই। ১৬ বছরের এক নাবালিকাকে গণধর্ষণের ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে এক নাবালককে গ্রেফতার করা হয়েছে নাবালককে। দিনে দিনে নাবালকদের মধ্যেও এই জঘন্য অপরাধের প্রবণতা বৃদ্ধি সমাজের উদ্বেগ বাড়িয়ে তুলেছে।

রাজস্থানের আলওয়ার জেলার এক নাবালিকাকে আটজন মিলে গণধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ। অভিযুক্তরা তাকে ব্ল্যাকমেইল করে ৫০,০০০ টাকা নিয়েছিল বলে পুলিশ আগেই জানিয়েছে। পুলিশের মতে, অভিযুক্ত নাবালিকার কিছু ব্যক্তিগত ছবি নিয়েছিল এবং ৫০ হাজার টাকা না দিলে ছবিগুলি প্রকাশ করা হবে বলে তাকে ব্ল্যাকমেল করেছিল। তার পরেই প্রধান অভিযুক্ত সহ আটজন মিলে নাবালিকাকে গণধর্ষণ করে। বুধবার নাবালিকার ভাই একটি অভিযোগ দায়ের করেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই পুলিশ তদন্তে নেমে এক নাবালককে আটক করেছে।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- পুলওয়ামায় সন্ত্রাসবাদী হামলায় শহিদ এক পুলিশকর্মী, আহত CRPF জওয়ান

নির্যাতিতার ভাই জানিয়েছেন, ২০২১ সালের ৩১ ডিসেম্বর সাহিল হিসাবে চিহ্নিত প্রধান অভিযুক্ত তাঁর বোনকে কাছের একটি জায়গায় ডেকেছিল এবং তাকে বলেছিল যে নাবালিকা মেয়েটির কিছু ব্যক্তিগত ছবি পেয়েছে এবং যদি সে না আসে তবে তারা এটি প্রকাশ করবে। অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী ঘটনাস্থলে পৌঁছলে আটজন লোক তাকে জোরপূর্বক অপহরণ করে এবং যৌন নির্যাতন করে। সঙ্গে সেই ঘটনার ভিডিও তৈরি করে।পুলিশ আরও জানিয়েছে সেই ঘটনার পর অভিযুক্তরা নির্যাতিতার কাছ থেকে টাকা আদায় শুরু করে এবং তাকে হুমকি দিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। এই বছরের এপ্রিল থেকে জুনের মধ্যে, অভিযুক্তরা নাবালিকার কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা নিয়েছে। কিন্তু নাবালিকা বেশি টাকা দিতে ব্যর্থ হলে অভিযুক্তরা ভিডিওটি স্থানীয় সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপে ছড়িয়ে দেয় বলে অভিযোগ উঠেছে। বাকি অভিযুক্তদের খোঁজে চলছে তল্লাশি