শারজার মরুঝড়: বালি ওড়েনি, একেকটি ডেলিভারি বুলেটের গতিতে উড়ে গিয়েছিল

0
30

বিশ্বদীপ ব্যানার্জি: কখনও না কখনও জীবনের পথে থমকে যাই আমরা সকলেই। কিছুই ভাল লাগেনা তখন। মনে হয়, আর বোধহয় ঘুরে দাঁড়ানোর উপায় নেই। কী করা উচিত তখন? ২৪ বছর আগে আজকের দিনে শারজার বুকে এসেছিল এক মরুঝড়। এক নয়, কার্যত দুটি মরুঝড়। একটি প্রাকৃতিক, আর অন্যটি…. এই দুই মরুঝড়-ই দিয়ে গিয়েছিল ওপরের প্রশ্নটির উত্তর।

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

শারজা, ২২ এপ্রিল, ১৯৯৮। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ত্রিদেশীয় সিরিজের শেষ লিগ ম্যাচে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমেছে ভারত। ২৮৫ করলে জিতবে আর ২৫৪ তে কোয়ালিফিকেশন। নিউজিল্যান্ডকে হটিয়ে।

কিন্তু কোথায় কি? হঠাৎ ই যে শুরু হয়েছে বালির বেপরোয়া দাপট! মরুঝড়— যাকে ইংরেজিতে বলা হয়, “Blizzard!” মাঠের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত পর্যন্ত দেখা ভার! এভাবে চললে তো…. নাহ্! ক্রিকেট ঈশ্বর বোধহয় মুখ তুলে চাইলেন। ২৫ মিনিট নীরব থাকার পর ফের প্রস্তুত ২২ গজ।

কিন্তু সমীকরণ? ব্যাপক বদল ঘটে গিয়েছে। ৪৬ ওভারে চাই ২৭৬। আর ফাইনালের টিকিট পেতে ২৩৭। ক্যামেরায় ধরা পড়তেই স্টিভ ওয়র শান্তশীতল মুখখানি আহ্লাদে গদগদ। বোধহয় না না বোধহয় কেন, নিশ্চিতভাবেই হয়তো ভাবছিলেন— “আমার ওয়ার্ন-ক্যাসপ্রোইচ-ফ্লেমিং সম্বলিত বোলিং ব্রিগেডের বিরুদ্ধে ২৭৬ বলে ২৭৬!— একি ছেলের হাতের মোয়া?”

নাহ্! সত্যিই মোয়া নয়— চিড়ে কিংবা মুড়ি, কোনও কিছুরই মোয়া নয়। কিন্তু মোয়া বানিয়ে ছাড়লেন একজনই। সচিন রমেশ তেন্ডুলকর। ফাইনালের দিন তাঁর আবার জন্মদিনও বটে। সেইদিন দলকে যদি ট্রফি তুলে দেওয়া যায়, তাহলেই তো জন্মদিনের উপযুক্ত উপহার হবে। কিন্তু সেইদিনে পৌঁছতে হলে আগে তো এদিনটা উৎরাতে হবে। অতয়েব শুরু হল দাঁতে দাঁত চেপে লড়াই। যদিও ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত হওয়ার পরপরই ড্যামিয়েনের ফ্লেমিংয়ের একটা জীবনঘাতী শর্ট বলে সব শেষ! ৪৬ ওভারে ভারত ২৫০/৫।

আরও পড়ুন: স্ত্রী জীবিত থাকতেই ফের সাতপাকে বাঁধা পড়তে চলেছেন ৬৬ বর্ষীয় অরুণ লাল

কিন্তু কিন্তু কিন্তু…. ততক্ষণেই ফাইনালের আগে মানসিকভাবে অজিদের সম্পূর্ণরূপেই তছনছ করে দিয়ে গিয়েছে সেই বিধ্বংসী ঝড় যা ইনিংস বিরতিতে ঘটে যাওয়া বালির ঝড়কেও ১০ গোল দিয়ে প্রকৃত পক্ষেই হয়ে উঠছে মরুঝড়! হ্যাঁ, মাত্র ১৩১ বলে ১৪৩; ৯টি চার এবং ৫টি ৬ সহযোগে। প্রকৃত অর্থেই মরুঝড়। কিন্তু নাঃ এটি ছিল একটি অংশমাত্র। আজ ২২ এপ্রিল। বাকিটা ২৪ তারিখ…..