মিথ্যে ‘আচ্ছে দিন’ নয়, সত্যিকারের আচ্ছে দিন আনবে তৃণমূল, রেড রোডে বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

0
29

কলকাতা: ধর্মের সুরসুরানি দিয়ে মানুষে মানুষে বিভাজন তৈরি করার রাজনীতি যারা করছেন, তাদের প্রত্যাখ্যান করার বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ মঙ্গলবার সকালে বৃষ্টি স্নাত রেড রোডে মুসলিম সম্প্রদায়ের ইদের নমাজে শামিল হয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)৷ সেখানেই সকলকে ইদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বললেন, ‘‘আমি থাকতে, তৃণমূল থাকতে বাংলায় বিভাজনের রাজনীতি বরদাস্ত করব না৷ এখানে হিন্দু-মুসলিম-শিখ-ইশাই সকলে একসঙ্গে মিলেমিশে থাকবে।’’

বস্তুত, খুশির ইদকে কেন্দ্র করে সকাল থেকে মুসিলম সম্প্রদায়ের মানুষ মেতে উঠেছেন খুশির ইদে। খুশির উৎসবে সামিল হয়েছেন অন্য সম্প্রদায়ের মানুষেরাও৷ সেই প্রসঙ্গ টেনেই এদিন রেড রোডে বৃষ্টিতে ভিজতে ভিজতে তৃণমূল নেত্রীকে বলতে শোনা যায়, ‘‘সব ধর্মের মিলনস্থল বলা হয় ভারতকে৷ সেই দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ভেঙে ফেলার চেষ্টা হচ্ছে৷ বিভাজনের রাজনীতি চলছে। হিংসার রাজনীতির আমদানি করা হচ্ছে৷ তবে আমরা এই সব বরদাস্ত করব না৷!’’ পরক্ষণেই দিলেন বরাভয়, ‘‘মিথ্যে ‘আচ্ছে দিন’ নয়, সত্যিকারের আচ্ছে দিন আনবে তৃণমূল৷’’ সকলের প্রার্থনা কামনা করে সেই মঞ্চ থেকেই নেত্রী জানিয়ে দিলেন, “যারা দেশকে টুকরো করতে চায়, হিংসা ছড়াতে চায়, গণতান্ত্রিক লড়াইয়ের মাধ্যমেই তাদের ক্ষমতাচ্যুত করব।”

সোমবার রাত থেকেই আকাশের মুখ ভার ছিল৷ সকাল থেকে শুরু হয় বৃষ্টি৷ তবে সে সব উপেক্ষা করে সকাল থেকেই শয়ে শয়ে মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষকে দেখা গিয়েছে রেড রোডে ইদের নমাজে শামিল হতে। বস্তুত, টানা একমাস রমজান পালনের পর এদিন বৃষ্টিভেজা রেড রোডেই ইদের নমাজ পড়লেন মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষরা। সেখানে নমাজ পাঠের মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, মেয়র ফিরহাদ হাকিম সহ অন্যান্য নেতা-মন্ত্রীরা।

আরও পড়ুন: ‘এক বছরেই মানুষের প্রাণ ওষ্ঠাগত, ৩৬ সাল পর্যন্ত শুনলে মানুষ আত্মহত্যা করবে’: Dilip Ghosh