19 C
Kolkata
Saturday, January 29, 2022
Home Breaking News Suvendu Adhikari: শুভেন্দুর বাংলায় রাজনীতি করার দিন শেষ, বিস্ফোরক দাবি যুব তৃনমূল...

Suvendu Adhikari: শুভেন্দুর বাংলায় রাজনীতি করার দিন শেষ, বিস্ফোরক দাবি যুব তৃনমূল নেতার

কাঁথি: রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে তীব্র ভাষায় আক্রমন করলেন তৃনমূলের যুব নেতা সুপ্রকাশ গিরি৷ তাঁর দাবি, ‘‘শুভেন্দুর বাংলায় রাজনীতি করার দিন শেষ। ওঁকে ভবিষ্যতে হয়তো ত্রিপুরায় গিয়ে রাজনীতি করতে হবে! সেখান থেকে হয়তো ভোটে জিতে আসতে হবে!’’

- Advertisement -

কেন একথা বলছেন, তাঁর ব্যাখ্যাও দিয়েছেন রাজ্যের মৎস্যমন্ত্রী অখিল গিরির পুত্র সুপ্রকাশ৷ তাঁর দাবি, ‘‘বিজেপির বাংলার রাজ্য সভাপতিও কলকাতা নির্বাচনে শুভেন্দু অধিকারীকে নাক না গলানোর পরামর্শ দিয়েছেন। কারণ, উনি বুঝে গিয়েছেন. শুভেন্দু অধিকারী যেখানে নির্বাচনের প্রচার করতে যাবে সেখানেই বিজেপির ক্ষতি হবে। বিজেপি গো হারান হারবে৷’’

বাংলাদেশের সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ভাঙচুরের ঘটনার প্রতিবাদে সম্প্রতি কাঁথি শহরে পদযাত্রা ও পথসভা করেছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা তথা নন্দীগ্রামের বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। সেখান থেকে তিনি হুঙ্কারের সুরে ‘খেলা হবে’ স্লোগান আউড়ে বলেছিলেন, ‘‘কাঁথি বিজেপি সাংগঠনিক জেলাকে অনুরোধ করব, ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীকে এখানে নিয়ে এসে একবার প্রচার করতে। সেখানে তৃণমূল কংগ্রেস খেলা হবে স্লোগান দিয়েছিল। সেখানকার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব তৃণমূলকে ঠেলে দিয়ে পাঠিয়ে দিয়েছে।’’

- Advertisement -

শুভেন্দুর ওই মন্তব্যের ব্যাখ্যা দিতে গিয়েই এভাবে তাঁকে আক্রমণ করেন সুপ্রকাশ৷ কাঁথি সাংগঠনিক জেলার যুব তৃনমূলের সভাপতি সুপ্রকাশ গিরি বলেন, “ত্রিপুরা থেকে মুখ্যমন্ত্রী আনুন, আমেরিকা থেকে প্রেসিডেন্টকে আনুন। তাতে কিস্যু হবে না৷ শুভেন্দু বাবুর বাংলার রাজনীতি আর হবে না। এটা তিনি ভালো মতন বুঝে গিয়েছেন। সেই কারণে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী, অন্য কোন রাজ্যের বিজেপির মুখ্যমন্ত্রীকে তেল মারতে হচ্ছে। বাংলা কি অবস্থা হয়েছেন দেখেছেন তো?’’

দাবি করেছেন, ‘‘বাংলার মানুষ শুভেন্দুকে আর বিশ্বাস করেন না। বিশ্বাসঘাতকদের বাংলায় কোনও জায়গা নেই। এখন তিনি ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী উপর ভরসা করছেন। অন্যান্য রাজ্যের নেতাদের পায়ে ধরছেন। কিভাবে বিজেপিতে টিকে থাকা যায়। সুকান্ত মজুমদারে মতোন বিজেপি রাজ্য সভাপতি শুভেন্দু অধিকারীকে পছন্দ করছেন না। ওর সত্যি খারাপ সময় যাচ্ছে৷’’

কটাক্ষের সুরে বলেছেন, ‘‘ত্রিপুরায় যে স্টাইলে নির্বাচন হয়েছে, সেই স্টাইলে বাংলায় নির্বাচন করতে বিশ্বাসী শুভেন্দু৷ কারণ, ও তো বুথ দখল করে রাজনীতি করেই বড় হয়েছে৷ তমলুকের বুথ দখল করে সাংসদ হয়েছিলেন। এবারেও নন্দীগ্রামে লোডশেডিং ও চুরি করে জিতেছেন। বিপ্লব দেবও চুরি করে পুরভোটে জিতেছেন৷ তাই চোরে চোরে এত মাখামাখি৷ কারণ, আগামী দিনে ওকে তো ওখানে গিয়েই রাজনীতি করতে হবে৷’’

- Advertisement -

আরও পড়ুন: গলা কেটে রেখে দেব, প্রকাশ্যে রোগীর পরিজনদের হুমকি দিচ্ছেন BMOH, ভাইরাল ভিডিও

- Advertisement -

সপ্তাহের সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ

অভিনয় জগৎ থেকে বিরতি নিয়ে কলকাতা ছাড়ছেন মিশমী দাস

অর্পিতা দাস: জি বাংলার এই পথ যদি না শেষ হয় ধারাবাহিকের রিনির চরিত্রে হয়তো আর দেখা যাবে না অভিনেত্রী মিশমী দাস কে। বিশেষ কিছু...

শেষদিনে হাসিমুখে বিদায় ‘রিনি’ মিশমির

অর্পিতা দাস: মুখোশ খুলে গেছে এই পথ যদি না শেষ হয় ধারাবাহিকের রিনির। এবার সত্যিই সরকার পরিবার থেকে পাকাপাকিভাবে বিদায় নিচ্ছে রিনি, ধারাবাহিকের মতোই...

মিঠাইতে জনের double role- দেখালেন নেটিজেনরাই

অর্পিতা দাস: জি বাংলায় মিঠাই ধারাবাহিকে ওম আগরওয়াল এর চরিত্রে দর্শকরা দেখছেন অভিনেতা জন ভট্টাচার্যকে, তবে এই ধারাবাহিকে জনের দ্বৈত চরিত্র- আর তা খুঁজে...

মিঠাই পরিবারে নতুন সদস্য

অর্পিতা দাস: মিঠাই পরিবারের মেকআপ রুমে হাজির নতুন সদস্য, লাঞ্চ টাইমে এই নতুন সদস্যর সঙ্গে শুটিং এর মাঝে আড্ডা জমিয়ে দিলেন সকলের প্রিয় মিঠাই,...

খবর এই মুহূর্তে

মরিচঝাঁপির উদ্বাস্তুদের পাশে বিজেপি

কলকাতা: দেশভাগ এবং সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার ফলে বহু বাঙালি শরণার্থী হিন্দু তদানীন্তন পূর্ব-পাকিস্তান ছেড়ে পশ্চিমবঙ্গে চলে আসে। ১৯৭৯ সালের ফেব্রুয়ারি। মরিচঝাঁপি হত্যাকাণ্ড। বাঙালি জাতির জীবনে...

Aay tobe sohochori : দেবিনাকে জব্দ করতে এবার টিপু’র মোক্ষম চাল

বিনোদন ডেস্কঃ গোপন মুহূর্তের ভিডিওর ভয় দেখিয়ে সমরেশকে দিয়ে সমস্ত কাজ করিয়ে নিচ্ছে দেবিনা । আর অন্য দিকে সমরেশ-দেবিনার সম্পর্ক প্রকাশ্যে আনতে মরিয়া বরফি-সহচরী।...

Special Recipe: শীতের সন্ধ্যায় মুচমুচে পকোড়ার সঙ্গে বানিয়ে নিন এই চাটনির রেসিপি

খাস ডেস্ক: একেই তো শীতকাল তার ওপরে ছুটির দিন। সকলেই চায় বাড়িতে আরাম করতে। কিন্তু বাড়িতে সকলে মিলে থাকলেই ভালো কিছু খাওয়ার ইচ্ছে হয়।...

রাবণ নিজে থেকেই চেয়েছিলেন রামের হাতে মরতে, জেনে নিন কারণ

বিশ্বদীপ ব্যানার্জি: রামায়ণ যদি রাম-সীতা এবং হনুমান ছাড়া অসম্ভব হয়, তাহলে রাবণ ছাড়াও অসম্ভব। মহাকাব্যে রাক্ষসরাজে'র যেমন চরিত্রই বর্ণণা করা হোক না কেন, একাধারে...