শাসকদলে ফিরে শান্তির ঘুম ফিরে পেলাম, দাবি অর্জুনের

0
52

নিজস্ব সংবাদদাতা, ব্যারাকপুর: তৃণমূল কর্মীদের ঘর ছাড়তে বাধ্য করে না৷ বরং ঘরে ফেরায়৷ বিধানসভা নির্বাচনের পর যেসব বিজেপি কর্মীরা ঘর ছাড়া আছে তাঁদের কে বলছি সরকারি প্রকল্পের সুযোগ সুবিধা নিয়ে তৃণমূলের হয়ে কাজ করুক৷ রবিবারে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে ফের তৃণমূলে ফিরেই সোমবার সকালে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে কর্মীদের উদ্দেশ্যে ঘাষফুল শিবিরে যোগদানের বার্তা দেন অর্জুন সিং৷

সেই সঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘আজ সকাল ৯.৩০ টা পর্যন্ত নিশ্চিতে ঘুমাতে পেরেছি৷ অনেক শান্তিতে ঘুমিয়েছি৷ কোনো রকম চাপ ছিল না মাথায়৷ সরকারি দলের অনেক বেশি দায়িত্ব থাকে৷ আমাকে দল এবার যে যে দায়িত্ব গুলো দেবে সেইগুলো পালন করব৷’’ কেন্দ্রীয় দায়িত্ব প্রত্যাহার প্রসঙ্গে অর্জুন সিং বলেন, ‘‘এই বিষয়ে কেন্দ্র জানে৷ আমায় দায়িত্ব দিয়েছিল তারাই সেই দায়িত্ব ফিরিয়ে কবে নেবে আমি কি করে জানব৷’’

‘‘বিরোধী থাকা খুবই দরকার৷ বিরোধী না থাকলে কাজ করার এনার্জি পাওয়া যায় না৷ তাই বিরোধী দল জেগে উঠছে দেখে ভালো লাগছে৷’’ সোমবার বিজেপি-র বৈঠক প্রসঙ্গে এমনটাই বক্তব্য রাখলেন অর্জুন৷

প্রসঙ্গত, অর্জুনের দল বদলে বিজেপি নেতারা একের পর এক বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন৷ রাজনীতিতে বোমা বাধাটা বাংলায় স্বাভাবিক ঘটনা৷ অর্জুন সিং-এর মতো এরকম অনেককেই বিজেপিতে নেওয়া হয়েছিল৷ যারা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে এসেছেন তাঁদের পক্ষে গেরুয়া শিবিরে থাকাটা অনেক কঠিন৷ যারা আদর্শ নিয়ে রাজনীতি করেন না তাঁদের পক্ষে বিজেপিতে থাকা মুশকিল৷ তাই অর্জুনের মতো যারা মানিয়ে নিয়ে থাকতে পারছেন না, তাঁরা তৃণমূলে চলে যাচ্ছেন৷ প্রাক্তন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং-এর তৃণমূলে যোগদান প্রসঙ্গে এমনই বিস্ফোরক মন্তব্য করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ৷