রাজ্যে জাল নোট তৈরির কারখানা, পিছনে কোন চক্র

0
87

বর্ধমান: বোমা বিস্ফোরণের দৌলতে বছর কয়েক আগে সংবাদ শিরোনামে উঠে এসেছিল খাগড়াগড়৷ এবার সেই খাগড়াগড় থেকেই হদিস মিলল জাল নোট কারখানার৷ উদ্ধার হল বেশ কিছু পরিমানের নকল নোট, নোট ছাপার মেশিন। যাকে ঘিরে ইতিমধ্যেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে সমগ্র বর্ধমান জুড়ে৷ ইতিনধ্যে পুলিশের জালে তিনজন৷ তাঁদেরকে পাকড়াও করে চক্রের বাকিদের সন্ধান পেতে চাইছে পুলিশ৷ ইতিমধ্যেই ধৃতদের নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানিয়েছে পুলিশ৷

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, বর্ধমান শহরের খাগড়াগড় সংলগ্ন বাদসাহী রোড এলাকায় একটি বাড়িতে চলছিল জাল নোট তৈরির কারখানা। ধৃতদের মধ্যে দীপঙ্কর চক্রবর্তীর বাড়ি দক্ষিন ২৪পরগনায়৷ গোপাল সিং এবং বিপুল সরকার বর্ধমান শহরের বাসিন্দা। ধৃতদের কাছ থেকে প্রায় ১২ হাজার ৫০০টাকা জাল নোট এবং নোট তৈরীর একাধিক ডাইস উদ্ধার হয়েছে।

বস্তুত, বেশ কিছুদিন ধরেই বর্ধমানের বিভিন্ন প্রান্তে মিলছিল জাল নোটের হদিস৷ এরই তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে খাগড়াগড় এলাকার মাঠপাড়ায় একটি বাড়িতে জাল নোটের কারবার চলছে। বৃহস্পতিবার হঠাৎ পুলিশ ওই বাড়িতে হানা দিয়ে হাতেনাতে জাল নোট সহ তিনজনকে গ্রেফতার করে৷ পুলিশ সুপার জানান, জাল নোট চক্রের কারখানার হদিশ পাওয়া গিয়েছে৷ ধৃত তিনজনকে জেরা করে চক্রের বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে৷ একই সঙ্গে কতদিন ধরে এই কারবার চলছিল, তারা ইতিমধ্যেই কত পরিমাণ টারা জাল নোট বাজারে ছেড়েছেন সবই খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷

আরও পড়ুন: খারিজ পার্থের রক্ষা কবচের আবেদন, বাড়ছে গ্রেফতারির সম্ভবনা