31 C
Kolkata
Friday, September 24, 2021
Home Breaking News বিদেশি খেলনার মাধ্যমে আকাশপথে কলকাতায় ঢুকছিল উন্নত প্রজাতির মাদক

বিদেশি খেলনার মাধ্যমে আকাশপথে কলকাতায় ঢুকছিল উন্নত প্রজাতির মাদক

পলাশ নস্কর, কলকাতা: আকাশ পথে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে পোড়া বাংলার মাটিতে আসছিল উন্নত প্রজাতির মাদক৷ মাধ্যম, নিরীহ খেলনা৷ এভাবেই দিনের পর দিন বিমান বন্দরের কড়া নজরদারি এড়িয়ে ভুয়ো কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যম খেলনা পাঠানোর নামে চলছিল মাদক পাচার৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: পোস্ট এডিট করে তৃণমূলে যাওয়ার জল্পনা উস্কে দিলেন স্বয়ং বাবুলই

বিদেশ থেকে মাদক পাচারের কানা ঘুঁষো ‘খবর’ সোর্স মারফৎ এলেও বিষয়টিকে করায়ত্ত করতে পারছিলেন না অফিসারেরা৷ অবশেষে এল সেই মাহেন্দ্রক্ষণ৷ কলকাতা বিমানবন্দর সূত্রের খবর, তিনদিন ধরে মোট ৫০টি বিদেশি পার্সেল আটক করেন নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (CENTRAL BUREAU OF NARCOTICS, INDIA) অফিসারেরা৷ খেলনার খোলস থেকে উদ্ধার হওয়া অত্যাধুনিক মাদকের পরিমাণ প্রায় ২০ কেজি৷ যার আর্থিক মূল্য প্রায় কয়েক কোটি টাকা৷ ইতিমধ্যেই জালে উঠেছে দুই তরুণী সহ তিনজন৷ ‘‘আগামীকাল, সোমবার ধৃতদের তোলা হবে স্পেশ্যাল আদালতে৷ হেফাজতে নিয়ে চক্রের জাল জানার চেষ্টা করা হবে’’ – জানান এনসিবির এক কর্তা৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: আইনি পথেই জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকে বুঝে নেওয়ার হুঁশিয়ারি জ্যোতিপ্রিয়র

কিভাবে মাদক চক্রের হদিস পাওয়া গেল? নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো সূত্রের খবর, সম্প্রতি সূত্র মারফৎ খবর আসে যে বেশকিছুদিন ধরেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া এবং কানাডা থেকে উন্নত প্রজাতির মাদক ভুয়ো কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যম দিয়ে দেশে প্রবেশ করছে৷ সেই তথ্য ধরেই বিভিন্ন আন্তর্জাতিক কুরিয়ার সংস্থার উপর নজরদারি চালানো হচ্ছিল৷ ২৭ জুলাই কলকাতায় এসে পৌঁছায় একটি বিদেশি পার্সেল, যেখানে খেলনা রয়েছে বলে তথ্য ছিল কুরিয়ার সংস্থার কাছে। সন্দেহ হওয়ায় এনসিবি-র কর্তারা সেটিকে তল্লাশি করেন৷

আরও পড়ুন: বিষমদ কাণ্ডে ১০ বছর পর দোষী সাব্যস্ত কুখ্যাত ডন খোঁড়া বাদশা

- Advertisement -

এরপরই ভিরমি খাওয়ার জোগাড়! যাকে বলে কেঁচো খুড়তে সাক্ষাৎ কেউটে৷ খেলনার খোলস থেকে বেরিয়ে আসে উন্নত প্রজাতির মাদক(চরস)৷ এরপরই টানা তিনদিন ধরে অত্যন্ত গোপনে বিদেশ থেকে আসা প্রতিটি পার্সেল আটক করে শুরু হয় তল্লাশি৷ এনসিবি-র এক কর্তা জানানা, ‘‘তিনদিনে মোট ৫০টি বিদেশি পার্সেল তল্লাশি চালিয়ে বাজেয়াপ্ত করা মাদকের পরিমাণ প্রায় ২০ কেজি৷’’ ওই কর্তার দাবি, ‘‘বাজেয়াপ্ত হওয়া মাদকগুলি খুবই উচ্চমানের৷ এগুলি শুধুমাত্র বিদেশে পাওয়া যায়৷ চড়া দামের বিনিময়ে সেগুলি আনা হচ্ছিল কলকাতায়৷’’

আরও পড়ুন:কেন শুভেন্দুর মুখকে নর্দমার সঙ্গে তুলনা করলেন কুণাল, জোর আলোচনা তিলোত্তমা জুড়ে

এরপরই তদন্তের সূত্র ধরে গোয়েন্দাদের কাছে উঠে আসে নয়া তথ্য৷ ডার্কনেট প্লাটফর্মের মধ্যে দিয়ে এই মাদক বুকিং করা হয়েছিল। যার ফলে ডিএলইও রাডার এর চোখেও ফাঁকি দিতে সফল হয়েছিলেন মাদক অর্ডারকারীরা। সেই তথ্য ধরেই দুই তরুণী সহ তিনজনকে গ্রেফতার করে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। এনসিবি সূত্রে খবর: বছর পঁচিশের ছিপ ছিপে তরুণী শ্রদ্ধা সুরানা এই মাদক পাচার চক্রের পান্ডা৷ তিনি নিজের পরিচয় গোপন করে কলকাতায় সিমরান সিং নামে বসবাস করতো। এমনকি ভুয়ো আধার কার্ড পর্যন্ত তৈরি করিয়েছিল এই অভিযুক্ত। ডার্ক ওয়েব ব্যবহার করে বিদেশ থেকে এই মাদক অর্ডার করেছিলেন।

আরও পড়ুন: কচ্ছপ উদ্ধারের ঘটনাতেও নাক গলাতে হচ্ছে, আক্ষেপ পুলিশ কর্তার

কলকাতায় মাদক পাচার চক্রের প্রধান মাথা হিসেবে কাজ করতেন শ্রদ্ধা৷ কলকাতা সহ রাজ্যের আনাচে কানাচে বিদেশি এই মাদক তিনি পৌঁছে দিতেন এক ডেলিভারি বয়ের মাধ্যমে৷ বিনিময়ে সংশ্লিষ্ট ডেলিভারি বয় পেতেন মোটা অঙ্কের পারিশ্রমিক৷ এভাবেই লক্ষ লক্ষ টাকার বিনিময়ে বিদেশি মাদক ছড়িয়ে পড়ত বাংলার দিক থেকে দিগন্তে৷

শ্রদ্ধার পাশাপাশি করণ কুমার গুপ্তা নামে ওই ডেলিভারি বয় এবং তৃণা ভাটনাগর নামে এক গ্রাহককে গ্রেফতার করেছে এনসিবি৷ তরুণী শ্রদ্ধার মাদক কারবারের জাল আর কোথায় কোথায় বিছিয়ে রয়েছে, পুঙ্খানুপুঙ্খ জানতে পুরো বিষয়টিকে আতস কাঁচের তলায় রাখছেন তদন্তকারীরা৷ উদ্দেশ্য একটাই, বিদেশি মাদক চক্রের শিকড়ে পৌঁছানো৷

- Advertisement -

সপ্তাহের সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ

নুসরত নয়, যশ বিয়ে করলেন মনের মানুষকে- ভাইরাল ভিডিও

অর্পিতা দাস: গতকাল প্রথমবার যশ দাশগুপ্তর সঙ্গে সিঁদুর পরে প্রকাশ্যে এসেছেন নুসরত জাহান। তবে এর মধ্যেই আবার অন্য কাউকে সিঁদুর পরালেন যশ, কে সেই...

ইশা সাহার বিয়েতে কেন নিমন্ত্রন পেলেন না- প্রশ্ন মিমি চক্রবর্তীর

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেত্রী ইশা সাহা কে সরাসরি বিয়ে নিয়ে প্রশ্ন করলেন অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। ইশা একটি ভিডিও দেখে মিমির প্রশ্ন 'বিয়েতে ডাকলি...

টাকার লোভে স্বামীর সঙ্গে কিশোরীদের সঙ্গমে বাধ্য করেন স্ত্রী

খাস খবর ডেস্ক: উচ্চ পদস্থ চাকরি করেন স্বামী। সরকারি দফতরের পদস্থ আধিকারিক। সেই ব্যক্তির স্ত্রী টাকার লোভে স্বামীর বিছানায় পাঠায় অন্য মহিলা। যাদের সকলের...

মিঠাই এর জন্য সোমের গায়ে হাত সিদ্ধার্থর- অবাক সকলে

অর্পিতা দাস: সিদ্ধার্থ ও মোদক পরিবারকে ছেড়ে অবশেষে জনাই তে চলে গেলেন মিঠাই। মোদক পরিবার ছেড়ে মিঠাইয়ের বেরিয়ে যাওয়া নিয়ে মন খারাপ দর্শকদের। তবে...

খবর এই মুহূর্তে

অগ্নিমূল্যের বাজারে ধুঁকছে ঐতিহ্যবাহী ডাকশিল্প : সরকারি সাহায্যের দাবি

তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া : শরতের আকাশে পেঁজা তুলোর মত মেঘ। কাশবনে কাশফুলের দোলা, ভোরের সোনালী আলোতে শিশির ভেজা শিউলি ফুলের সুভাস জানান দেয় 'মা...

কোয়েম্যানকে ছাঁটাইয়ের প্রস্তুতি, নয়া কোচের সঙ্গে আলোচনায় বার্সেলোনা

খাস খবর ডেস্ক: হতাশাজনক মরশুম শুরু হয়েছে বার্সেলোনার জন্য। ক্যাম্প ন্যুতে জয় অধরা, শিবিরে চিন্তা ক্রমশ বাড়ছে। শুক্রবার লা লিগায় কাদিজ্‌ এর বিরুদ্ধে গোলশূন্য...

করোনার দাপট: পুজোয় আস্ত কৈলাশ তুলে আনছেন বিপ্লবীরা

খাস খবর ডেস্ক: আর মাত্র কয়েকটা দিনের অপেক্ষা। তারপরেই বাঙালির শ্রেষ্ঠ উত্‍সব। নীল আকাশে সাদা মেঘের হাতছানি শুরু হয়েছে। শরৎ-এর হিমেল বাতাস, কাশবনে কাশফুলের...

‘বি থেকে ভবানীপুর, বি থেকেই ভারতবর্ষ’ : খাসতালুক থেকে দিল্লি দখলের ডাক মমতার

কলকাতা: ভবানীপুর কেন্দ্রের উপ নির্বাচন ঘোষণা হওয়া ইস্তক প্রচারে বেরিয়ে সক্কাল থেকে রাত্তির পর্যন্ত গেরুয়া শিবিরের বিভিন্ন নেতারা দাবি করে চলেছেন- ‘‘উনি (মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়)...